বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২

টেক্সওয়ার্ল্ড প্যারিস শোতে অংশগ্রহণ করছে বাংলাদেশের ৯ প্রতিষ্ঠান

অনলাইন ডেস্ক
|  ০৯ মে ২০২২, ০১:২৫ | আপডেট : ০৯ মে ২০২২, ০১:২৬

 

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে ৪ থেকে ৬ জুলাই তিনদিন ব্যাপী অনুষ্ঠেয় ‘টেক্সওয়ার্ল্ড প্যারিস’ শোতে বাংলাদেশের টেক্সটাইল, গার্মেন্টস ও চামড়া খাতের নয়টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধিনে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) মাধ্যমে বাংলাদেশি কোম্পানিগুলো ‘দ্য টেক্সওয়াল্ড/এপেয়ারেল সোর্সিং/লেদারওয়াল্ড প্যারিস’ শিরোনামে এক্সপোতে অংশ নিবে।
ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- ডিডি সোর্সিং লিমিটেড, নিলিমা ফ্যাশন ওয়ার লিমিটেড, লাইট্স ক্রিয়েশন, ভারটেক্স ওয়ার লিমিটেড, ডিকে টেক্সটাইল লিমিটেড, হোসেন ডাইয়িং এন্ড পেইন্টিং মিলস লিমিটেড, তোসা ক্রিয়েশন লিমিটেড, সিবিএম ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড এবং অনন্যা সক্স এন্ড ইনার্স ইনডাস্ট্রিস লিমিটেড।
নির্মাতারা তুলা, ডেনিম, ড্র্যাপারী এবং টেইলারিং, এমব্রয়েডারি এবং লেইস, জ্যাকোয়ার্ড, বোনা কাপড়, লিনেন এবং হেম্প, প্রিন্ট, শার্টিং, সিল্ক, সিল্কি দিক, খেলাধুলার পোশাক এবং কার্যকরী কাপড়, ছাঁটা এবং আনুষাঙ্গিক, উল এবং পশমী সামগ্রীর উপর বিভিন্ন পণ্য প্রদর্শন করবে।
এপারেল সোসিং প্যারিস ইউরোপিয়ান মার্কেটের জন্য একটি প্রধান কাপড় সোসিং প্লাটফর্ম। এখানে নারী, পুরুষ ও শিশুপণ্যসহ আনুসঙ্গিক পণ্যের বিস্তৃত পরিসর রয়েছে।
ইপিবির পরিচালক (ফেয়ার এন্ড ডিসপ্লে) আবু মুখলেস আলমগীর হোসেন বাসসকে বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে ফ্রান্স বাংলাদেশের একটি অন্যতম অর্থনৈতিক অংশীদার।
তিনি আরও বলেন, ‘দুই দেশের মধ্যে রয়েছে উন্নয়ন সহযোগী শক্তিশালী অর্থনৈতিক ও ব্যবসাসিক সম্পর্ক। ফ্রান্স থেকে প্রধান রপ্তানি আয় বাংলাদেশের তৈরি পোষাক পণ্য। অন্যান্য রপ্তানি পণ্যের মধ্যে রয়েছে চামড়া ও পাদুকা, চিংড়ি এবং হিমায়িত মাছ, সিরামিক ও ফার্মাসিউটিক্যাল সামগ্রী।’
তিনি বলেন, বাংলাদেশের লক্ষ্য ফ্রান্স বিনিয়োগকারীদের পোর্টফোলিও বাড়ানো, ফরাসি ব্যবসায়িদের পরামর্শ দেয়া এবং তাদের মার্কেটে বাংলাদেশের নিরাপদ অবস্থান তৈরি করা।
তিনি জানান ফ্রান্স ইউরোপীয় ইউনিয়নে বাংলাদেশের তৃতীয় বৃহত্তর রপ্তানিস্থল এবং ২০২০-২১ সালে বাংলাদেশ ১ দশমিক ৭৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পোষাক রপ্তানি করেছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত