বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০২২

ইউনিয়ন পরিষদ চেয়্যারমানের বিরুদ্ধে ৮ সদস্যের অভিযোগ

মো: মানিক হোসেন, রাজশাহী
|  ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৫৩ | আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২১:১১

রাজশাহীতে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলামের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ জানিয়েছেন ওই ইউনিয়নেরই ৮ জন সদস্য। অভিযুক্ত রিয়াজুল ইসলাম দুর্গাপুর উপজেলার ৪ নম্বর দেলুয়াবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১ টায় রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করেন ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যরা।

অভিযোগের বক্তব্যে ইউপি সদস্য আবুল বাশার বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম জি.আর.এর চাল আড়াই মেট্রিক টন চাল যার বাজার মূল্য ৬৮ হাজার টাকা আত্মসাত করে। তাছাড়া তিনি অবৈধ পুকুর খনন, পুকুরের ডিড জালিয়াতিসহ মাদক মামলার আসামী একজন মেম্বারকে জামিনে মুক্তির জন্য জীবিত মায়ের মৃত্যুর সনদ দেন। তিনি আরো বলেন, চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম ২০১৬ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত বিগত সময়ে ১২ জন ইউপি সদস্যদের ৩৫ মাসের মাসিক ভাতা ১৮ লক্ষ ৪৮ হাজার টাকা আত্মসাত করে। যার অভিযোগ জেলা প্রশাসক দপ্তরে আজও বিদ্যমান।

আরো অভিযোগ করেন, ২০১৯ সালে ১৯ জানুয়ারী অবৈধভাবে জোর পূর্বক পুকুর খননের জন্য চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলামকে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাকে ৭ দিনের কারাদন্ড প্রদান করেন। এছাড়াও ইউনিয়ন পরিষদে সরকারি টাকা তার নিজ পুকুরে যাওয়ার জন্য পাকা রাস্তা তৈরী করে। এসবের অভিযোগ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যরা জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর আগেও একাধিকবার অভিযোগ করেও কোন শাস্তি হয়নি বলে তারা দাবি করেন।

চেয়ারম্যানের এমন সীমাহীন অনিয়ম, দুর্নীতির সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানান তারা। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দেলুয়াবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য তাজুল ইসলাম, খলিলুর রহমান, আফসার আলী, আবুল খায়ের, রহিদুল ইসলাম, সু্বদো খাতুন, লাবনী খাতুন। এসব অভিযোগের বিষয়ে দেলুয়াবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলামের সাথে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে ফোন রিসিভ না করায় কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত