মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২১

কোভিড: ১৮ মাস পর ঢাকায় মৃত্যুহীন দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
|  ২১ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩৬ | আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১১:২৬
 

দেশে করোনাভাইরাসের মহামারী শুরুর পর গত ১৮ মাসের মধ্যে প্রথমবার একটি মৃত্যুহীন দিন পেল ঢাকা বিভাগ।

 

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত বছরের ৮ মার্চ। তার দশ দিন পর ১৮ মার্চ আসে প্রথম মৃত্যুর খবর। মহামারী শুরুর পর সর্বশেষ ২০২০ সালের ৩ এপ্রিল মৃত্যুহীন দিন দেখেছিল বাংলাদেশ।

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, “ঢাকা বিভাগে তারপর মৃত্যু কোনো সময়ই শূন্য হয় নাই। প্রথম মৃত্যু, প্রথম সংক্রমণ সব ঢাকা বিভাগেই ছিল। এ পর্যন্ত সংক্রমণ, মৃত্যু সব চেয়ে বেশি ঢাকাতেই।”

 

মহামারীর এই পুরোটা সময়ে সব মিলিয়ে ২৭ হাজার ৭৯১ জনের মৃত্যুর তথ্য সরকারের খাতায় এসেছে। তাদের মধ্যে ১২ হাজার ১১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে, যা মোট মৃত্যুর ৪৪ শতাংশ।

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত এক দিনে দেশে আরও ৩৬৮ জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত কোভিড শনাক্ত হয়েছে ১৫ লাখ ৬৬ হাজার ৬৬৪ জনের মধ্যে।

 

মঙ্গলবার সারাদেশে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছিল, আর ৪৬৯ জন নতুন রোগী পাওয়ার কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সে হিসাবে গত এক দিনে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ও মৃত্যু দুটোই কমেছে।

 

সরকারি হিসাবে গত এক দিনে দেশে সেরে উঠেছেন আরও ৪৮১ জন। তাদের নিয়ে এ পর্যন্ত মোট ১৫ লাখ ২৯ হাজার ৫৪৯ জন সুস্থ হয়ে উঠলেন।

 

গত একদিনে যারা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে ২৪৩ জনই ঢাকা বিভাগের, যা দিনের মোট শনাক্তের দুই তৃতীয়াংশের বেশি।

 

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত বছরের ৮ মার্চ। গত ৩১ অগাস্ট তা ১৫ লাখ পেরিয়ে যায়। এর আগে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ব্যাপক বিস্তারের মধ্যে ২৮ জুলাই দেশে রেকর্ড ১৬ হাজার ২৩০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়।

 

গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এ বছর ১৪ সেপ্টেম্বর তা ২৭ হাজার ছাড়িয়ে যায়। তার আগে ৫ অগাস্ট ও ১০ অগাস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যুর খবর আসে, যা মহামারীর মধ্যে এক দিনের সর্বোচ্চ সংখ্যা।

 

বিশ্বে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ইতোমধ্যে ৪৯ লাখ ১৫ হাজার ছাড়িয়েছে। আর শনাক্ত হয়েছে ২৪ কোটি ১৬ লাখের বেশি রোগী।

 

 

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত